লাইলাতুল ক্বাদ্‌র এর ফযিলত

আর মহান আল্লাহর বাণীঃ “নিশ্চয়ই আমি নাযিল করেছি এ কুরআন মহিমান্বিত রাত্রিতে। আর আপনি কি জানেন মহিমান্বিত রাত্রি কী? মহিমান্বিত রাত্রি হাজার মাসের চেয়েও শ্রেষ্ঠ। সেই রাত্রে প্রত্যেক কাজের জন্য ফেরেশতাগণ এবং রূহ তাদের প্রতিপালকের আদেশক্রমে অবতীর্ণ হয়। সেই রাত্রি শান্তিই শান্তি, ফজর হওয়া পর্যন্ত।” (আল-কাদ্‌র ১-৫)

ইব্‌নু ‘উয়ায়না (রহঃ) বলেন, কুরআন মাজীদে যে স্থলে উল্লেখ করা হয়েছে আল্লাহ তা’আলা সে সম্পর্কে আল্লাহর রসূল (সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম) -কে অবহিত করেছেন। আর যে স্থলে ‘আরবী’ উল্লেখ্য করা হয়েছে তা তাঁকে অবহিত করান নি।